1. editor@dailybogratimes.com : dailybogratimes. :
আদমদীঘি ইসলামী ব্যংকের এজেন্ট শাখার প্রতারণা মামলায় কোন গ্রেফতার নেই গ্রাহকরা উৎকন্ঠায় » Daily Bogra Times
Logo শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০২:৪০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত, আহত ১২ করতোয়া নদীতে নারীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ হার দিয়েই সুপার এইটের যাত্রা শুরু বাংলাদেশের ঢাকার বাজারে কাঁচা মরিচের কেজি ৪০০ টাকা ইংরেজীতে উপস্থাপনায় দেশসেরা ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী পাঁচবিবির জোবাইদা নাচোলে হত্যা মামলার আসামীর রহস্যজনক মৃত্যু এক ছাগলেই ওলট-পালট করে দিলো লাকি-মতিউর এর সংসার চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১ প্রস্রাবের রং দেখেই রোগ ও চিকিৎসা নির্ণয় রাসেলস ভাইপার থেকে বাঁচার দোয়া পাচারের কারণেই ডলার সংকটের শুরু, সাবেক পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ঘুমন্ত অবস্থায় পাহাড়ধস, স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু তিস্তায় বিপৎসীমার ওপরে পানি , ১৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি আলভারেজ-মার্টিনেজের গোলে কোপায় শুভসূচনা আর্জেন্টিনার সুপার এইট এ- ১৪০ রানে থামল বাংলাদেশ, বৃষ্টির হানা

আদমদীঘি ইসলামী ব্যংকের এজেন্ট শাখার প্রতারণা মামলায় কোন গ্রেফতার নেই গ্রাহকরা উৎকন্ঠায়

মোঃ রবিঊল ইসলাম (রবীন)
  • শনিবার, ১ জুন, ২০২৪
  • ১২ বার পঠিত
আদমদীঘি ইসলামী ব্যংকের এজেন্ট শাখার প্রতারণা মামলায় কোন গ্রেফতার নেই গ্রাহকরা উৎকন্ঠায়
print news

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার আদমদীঘির চাঁপাপুর ইসলামী ব্যংকের
এজেন্ট শাখা থেকে গ্রাহকের আমানতের একাউন্ট থেকে বিপুল পরিমান অর্থ
হাতিয়ে নেওয়ার প্রতারণা মামলায় কোন অভিযুক্ত আজ (শনিবার) পর্যন্ত গ্রেফতার
হয়নি।
গত মঙ্গলবার ( ২৮ মে) উপজেলার চাঁপাপুর ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট শাখার
স্বত্বাধীকারি নূরুল ইসলাম উক্ত এজেন্ট ব্যাংকের ক্যাশিয়ার সুজন রহমান, তার
বাবা, মা’র বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। কিন্তু এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উক্ত
মামলায় কোন অভিযুক্ত গ্রেফতার হয়নি। মামলার এজাহারভুক্ত অভিযুক্তরা হলেন,
উপজেলার চাঁপাপুর ইউপির গোবিন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ঐ ব্যাংকের
ক্যাশিয়ার সুজন রহমান (২৭), তার বাবা এনামুল হক (৪৬) এবং তার মা রুবিয়া
খাতুন (৪২)।
এ বিষয়ে ঐ এজেন্ট শাখার স্বত্বাধিকারি নূরুল ইসলাম জানান, ’ এজেন্ট
ব্যাংকের ক্যাশিয়ার সুজন রহমান, তার বাবা ও মায়ের সহায়তায় প্রতারণার মাধ্যমে
১ কোটি ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে থানায়
,মামলা করেছি।
এদিকে গত ৫দিনে উক্ত ঘটনার পর এবং মামলা হওয়ার পর কোন অভিযুক্ত গ্রেফতার না
হওয়ায় ঐ এজেন্ট ব্যাংকের গ্রাহদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। ভুক্তভোগী ফরিদা
বেগম বলেন, আমার প্রবাসী ছেলের পাঠানো টাকা ঐ এজেন্ট ব্যাংকে ছিল।
বর্তমানে কোন টাকা নেই একাউন্টে। আমার টাকা কি হবে ?
উল্লেখ্য, উপজেলার চাঁপাপুর ইউপিতে ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় গত ২৬ মে
গ্রাহকারা টাকা তুলতে এসে দেখেন তাদের একাউন্টে কোন টাকা নেই। ঐ
ঘটনার ৩ দিন আগে থেকে প্রধান অভিযুক্ত ঐ ব্যাংকের ক্যাশিয়ার সুজন রহমান
পলাতক ছিলেন।
আদমদীঘি থানার ওসি রাজেশ কুমার জানান, আজ (শনিবার) পর্যন্ত এ মামলার কোন
অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা যায়নি। তবে অভিযান অব্যহত আছে। ঐ ব্যাংকে কোন
নিরাপত্তা প্রহরী ছিল না।

এনাম হক / ডেইলি বগুড়া টাইমস

আরো খবর
© All rights reserved by Daily Bogra Times  © 2023
Theme Customized BY LatestNews