1. editor@dailybogratimes.com : dailybogratimes. :
এ ধাপের উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা » Daily Bogra Times
Logo সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০১:৫৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
প্রথম সিনেমা নিয়ে ঝামেলায় আমিরপুত্র কাতারে তৃতীয় দফায় জাতিসংঘের বৈঠকে অংশ নেবে আফগান সরকার বায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত কোন দেশে কীভাবে পালিত হয় ঈদুল আজহা লালমনিরহাটে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে স্বামী -স্ত্রী নিহত ঈদের দিন নেপালকে হারিয়ে সুপার ৮ এ বাংলাদেশ বগুড়ায় ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার বুবলী দিচ্ছেন গরু কোরবানি, অপু ছাগল ঈদের দিন ঢাকাসহ দেশের যেসব অঞ্চলে বৃষ্টির সম্ভাবনা  সেন্টমার্টিন নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে, বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ: আইএসপিআর কোরবানির আগে ট্রিপল সেঞ্চুরি কাঁচা মরিচের, শসা মারলো সেঞ্চুরি পাবনায় কোরবানির গরু আনতে গিয়ে পদ্মায় ডুবে প্রাণ গেল কৃষকের ইদের ছুটিতে ঘুরে আসতে পারেন নৈসর্গিক পরিবেশের সরোবর পার্ক এন্ড রিসোর্টে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‌রুহুল আমিন সাইফুল

এ ধাপের উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা

নিউজ ডেস্কঃ-
  • বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪
  • ১৩ বার পঠিত
এ ধাপের উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা
print news

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে সারা দেশে ৮৭টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। ভোট গণনা শেষে রাতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে অধিকাংশ উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

তৃতীয় ধাপের নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের তালিকা প্রতিদিনের বাংলাদেশের প্রতিবেদকদের পাঠানো প্রতিবেদনে—

সিরাজদীখান (মুন্সীগঞ্জ) : সিরাজদীখান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আওলাদ হোসেন মৃধা আনারস মার্কায় ৪৬ হাজার ১৯০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) : শ্রীনগর উপজেরা পরিষদ নির্বাচনে কোলাপাড়া আওয়ামী লীগের সভাপতি এম মাহবুব উল্লাহ কিসমত দোয়াত-কলম মার্কায় ৫৭ হাজার ২৩১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

ডামুড্যা (শরীয়তপুর) : জেলা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া সম্পাদক আব্দুর রশীদ গোলন্দাজ ঘোড়া প্রতীকে ২৪ হাজার ৯৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

গোসাইরহাট (শরীয়তপুর) : ঢাকার তেজগাঁও থানা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া সম্পাদক মো. মোশারফ হোসেন সরদার হেলিকপ্টার প্রতীকে ২০ হাজার ১৮৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

সদর (মানিকগঞ্জ) : জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা মোটরসাইকেল প্রতীকে ৩৪ হাজার ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) : জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান আলী সাজু মোটরসাইকেল প্রতীকে ২২ হাজার ৮৩২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সদরপুর (ফরিদপুর) : উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাবুল আনারস প্রতীকে ৪০ হাজার ৩৩৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

ভাঙ্গা (ফরিদপুর) : আলগী ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাউসার ভূঁইয়া দোয়াত-কলম প্রতীকে ৬২ হাজার ৮৭২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

তাড়াইল (কিশোরগঞ্জ) : জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. জহিরুল ইসলাম ভূইয়া শাহিন লাঙ্গল প্রতীকে ৩৯ হাজার ৭২৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন।

করিমগঞ্জ (কিশোরগঞ্জ) : চেয়ারম্যান পদে অ্যাডভোকেট মোজাম্মেল হক মাখন হেলিকপ্টার প্রতীকে ২৭ হাজার ৯২৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

মিঠামইন (কিশোরগঞ্জ) : আওয়ামী লীগ নেতা এবং সাবেক রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ছোট বোন আছিয়া আলম মোটরসাইকেল প্রতীকে ২৩ হাজার ৫৬৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন।

ইটনা (কিশোরগঞ্জ) : চৌধুরী কামরুল হাসান কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৩৫ হাজার ৪৬৪ ভোট পেয়ে তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। 

সদর (টাঙ্গাইল) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন খান তোফা দোয়াত কলম প্রতীকে ৪২ হাজার ৪৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) : আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেনের ছেলে কে এম সালমান শামস্ আনরস প্রতীকে ২১ হাজার ৭৭৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

দেলদুয়ার (টাঙ্গাইল) : জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুল হাসান মারুফ কাপ-পিরিচ প্রতীকে ২৯ হাজার ২৯৭ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। 

শিবপুর (নরসিংদী) : উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফেরদৌসী ইসলাম কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৪৭ হাজার ৭৮৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ফেরদৌসী ইসলাম স্থানীয় সংসদ সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লার স্ত্রী।

লংগদু (রাঙামাটি) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাশ বাবু আনারস প্রতীকে ১৬ হাজার ৯৮৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। 

নানিয়ারচর (রাঙামাটি) : ইউপিডিএফ সমর্থিত অমর জীবন চাকমা আনারস প্রতীকে ৬ হাজার ১৫৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন।

বুড়িচং (কুমিল্লা) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখলাক হায়দার ঘোড়া প্রতীকে ৩৭ হাজার ৭৮৭ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান হয়েছেন।

ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) : কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু তৈয়ব অপি ঘোড়া প্রতীকে ৪৩ হাজার ৬৫৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। অপি কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য আবু জাহেরের ভাতিজা।

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) : কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবলীগের সদস্য মামুনুর রশীদ মামুন আনারস প্রতীকে ৯২ হাজার ৫২১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। মামুন কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) আসনের সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের ছোট ভাই।

মুরাদনগর (কুমিল্লা) : উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসানুল আলম সরকার কিশোর আনারস প্রতীকে ৮৬ হাজার ৩৭৫ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। কিশোর কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনের এমপি জাহাঙ্গীর আলম সরকারের ছেলে।

রামু (কক্সবাজার) : আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো মোটরসাইকেল প্রতীকে ৪৩ হাজার ৮০৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন।

উখিয়া (কক্সবাজার) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ৩৮ হাজার ৫২৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্থানীয় সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার চৌধুরীর ছোট ভাই এবং এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির শ্যালক।

টেকনাফ (কক্সবাজার) : আওয়ামী লীগ নেতা জাফর আহমদ আনারস মার্কায় ৫২ হাজার ৩৬৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন।

সদর (নোয়াখালী) : একেএম সামছুদ্দিন জেহান আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৪৭ হাজার ৯৯০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী) : বেগমগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে মো. শাহেদ শাহরিয়ার দোয়াত কলম প্রতীকে ৩৬ হাজার ৬৭৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) : মোহাম্মদ গোলাম শরীফ চৌধুরী পিপুল আনারস প্রতীকে ৪৮ হাজার ২২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) : প্রবাসী ব্যবসায়ী জসীম উদ্দীন আহমেদ মোটরসাইকেল প্রতীকে ৩৮ হাজার ৩৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন।

পটিয়া (চট্টগ্রাম) : চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য মো. দিদারুল আলম দোয়াত-কলম প্রতীকে ৫৬ হাজার ৫৪১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। 

আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : আশুগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মো. জিয়াউল করিম খাঁন সাজু। মোটরসাইকেল প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩১ হাজার ২৪৮ ভোট।

বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) :  বাঞ্ছারামপুরে তৃতীয়াবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম। ঘোড়া প্রতীকে তিনি ৮২ হাজার ৮১৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। 

বোয়ালখালী (চট্টগ্রাম) : আওয়ামী লীগের জাহেদুল হক হেলিকপ্টার প্রতীকে ৩০ হাজার ৫৭৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি কাজী মোজাম্মেল হক ৫৮ হাজার ৮৩০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন।

সদর (ফেনী) : ফেনী সদর উপজেলায় দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল। দোয়াত-কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ২ লাখ ১৩ হাজার ৮৯৩ ভোট।

সোনাগাজী (ফেনী) : সোনাগাজী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দ্বিতীয়বারের মতো জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দোয়াত-কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন হাজার ৮৬ হাজার ১৭১ ভোট।

দাগনভূঞা (ফেনী) : দাগনভূঞা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে চতুর্থবারের মতো জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি দিদারুল কবির রতন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দোয়াত-কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ১ লাখ ১৭ হাজার ১৫৮ ভোট। 

ফেঞ্চুগঞ্জ (সিলেট) : ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশফাকুল ইসলাম সাব্বির আনারস প্রতীকে ১২ হাজার ৫৫৮টি ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

বিয়ানীবাজার (সিলেট) : আবুল কাশেম পল্লব হেলিকপ্টার প্রতীকে ২০ হাজার ১৯৩ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান হয়েছেন।

বালাগঞ্জ (সিলেট) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনহার মিয়া আনারস প্রতীকে ২০ হাজার ৮৩৪ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) : ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল মোটরসাইকেল প্রতীকে ৪৬ হাজার ৬৪০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। বিজয়ী ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল কৃষিমন্ত্রী উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদের আপন ছোট ভাই।

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) : ভানুলাল রায় কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৪২ হাজার ৬৬৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। 

ছাতক (সুনামগঞ্জ) : সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৪১ হাজার ১৪৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম কিরণ। 

দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) :  দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে ২৫ হাজার ৬৬১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান তানভীর আশরাফী বাবু। 

সদর (হবিগঞ্জ) : হবিগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩৬ হাজার ৪১৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মোতাচ্ছিরুল ইসলাম (আনারস প্রতীক)।

লাখাই (হবিগঞ্জ) : লাখাই উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মুশফিউল আলম আজাদ। তিনি কৈ মাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৩২ হাজার ৯২২ ভোট।

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) : শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ফের বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল। আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল মোটরসাইকেল প্রতীকে ১৫ হাজার ৩০০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সাদুল্লাপুর (গাইবান্ধা) : উপজেলা কৃষক লীগের সহসভাপতি মো. রেজাউল করিম রেজা আনারস প্রতীকে ৩০ হাজার ২১৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) : মোস্তফা মহসিন লাঙল প্রতীকে পেয়েছেন ২৭ হাজার ১১৯ ভোট নির্বাচিত হয়েছেন।

গঙ্গাচড়া (রংপুর) : মোকারম হোসেন সুজন ঘোড়া প্রতীকে ২৯ হাজার ৪১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সদর (রংপুর) : মো. ইকবাল হোসেন আনারস প্রতীকে ২৮ হাজার ২৬৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুন্নবী চৌধুরী ৪৭ হাজার ৭৭১ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

ভুরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) : শিমুলবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এজাহার আলী ২৭ হাজার ৬৫১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) : জাতীয় পার্টির নেতা মো. মহিবুল হক খোকন ৫১ হাজার ১০১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সদর (দিনাজপুর) : সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদ সরকার ৫৫ হাজার ৬৪ ভোট পেয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

খানসামা (দিনাজপুর) : সহিদুজ্জামান শাহ ৩৩ হাজার ৯৯৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুনীল কুমার সাহা ৩৭ হাজার ৯৯৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আখতারুল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীকে ৬০ হাজার ৮০০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

সদর (লালমনিরহাট) : উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে লালমনিরহাট সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন কামরুজ্জামান সুজন। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪১ হাজার ৪৮৯ ভোট। 

সদর (বগুড়া) : চেয়ারম্যান পদে জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশিষ পোদ্দার লিটন আনারস প্রতীকে ৩৫ হাজার ৭৭১ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন।

শাজাহানপুর (বগুড়া) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সোহরাব হোসেন ছান্নু মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫৩ হাজার ২১৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

শিবগঞ্জ (বগুড়া) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তা ৭৭ হাজার ১০৪ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

মাদারগঞ্জ (জামালপুর) : উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রায়হান রহমতুল্যাহ রিমু কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৪৮ হাজার ৬১৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

মেলান্দহ (জামালপুর) : জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও মেলান্দহ পৌরসভার সাবেক মেয়র দিদার পাশা মোটরসাইকেল প্রতীকে ৭৮ হাজার ৬৬৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সদর (নীলফামারী) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুজার রহমান আনারস প্রতীকে ৪৮ হাজার ৫৩৯ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

মোহনগঞ্জ (নেত্রকোণা) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদ ইকবাল ঘোড়া প্রতীকে ৩০ হাজার ৫৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

মদন (নেত্রকোণা) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. ইফতেখারুল আলম চৌধুরী ঘোড়া প্রতীকে ১৮ হাজার ৬৭৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন। 

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) : আওয়ামী লীগ নেতা বদরুল আলম প্রদীপ ৪৮ হাজার ৩৯২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ ঘোড়া প্রতীকে ৩৮ হাজার ৬২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) : বিএনপি বহিষ্কৃত নেতা মুহাম্মদ আনোয়ার সাদাত কাপ-পিরিচ প্রতীকে ৩৯ হাজার ৩৬৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন। 

রাণীনগর (নওগাঁ) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রাহিদ সরদার কাপ-পিরিচ প্রতীকে ২৩ হাজার ৪৬৪ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

আত্রাই (নওগাঁ) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবাদুর রহমান কৈ মাছ প্রতীকে ২১ হাজার ৪৭৬ ভোট পেয়ে চতুর্থবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

পবা (রাজশাহী) : জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দফতর সম্পাদক ফারুক হোসেন ডাবলু আনারস প্রতীকে ৩৪ হাজার ৪৬২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

মোহনপুর (রাজশাহী) : উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক আফজাল হোসেন বকুল আনারস প্রতীকে ৩১ হাজার ১১৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. তাজ উদ্দিন দোয়াত-কলম প্রতীকে ১৪ হাজার ৪৩৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরু। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫৫ হাজার ২১৮ ভোট। 

সদর (পাবনা) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  সোহেল হাসান শাহীন মোটরসাইকেল প্রতীকে ৬৫ হাজার ৭৬৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

আটঘরিয়া (পাবনা) : তানভীর ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীকে ৪০ হাজার ৫৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

ঈশ্বরদী (পাবনা) : এমদাদুল হক রানা সরদার আনারস প্রতীকে ৩৯ হাজার ১৭০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

গুরুদাসপুর (নাটোর) : গুরুদাসপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আহম্মদ আলী ঘোড়া প্রতীকে ২০ হাজার ৩৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : বড়াইগ্রাম উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে মো. মোয়াজ্জেম হোসেন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪০ হাজার ২৪৭ভোট।  

অভয়নগর (যশোর) : উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার অলিয়ার রহমান মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫৪ হাজার ৭১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

বাঘারপাড়া (যশোর) : জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার বিপুল ফারাজী মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫২ হাজার ১৯৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সদর (সাতক্ষীরা) : সদর উপজেলায় লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মশিউর রহমান বাবু ৩১ হাজার ১৯৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। 

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) : কলারোয়া উপজেলা আমিনুল ইসলাম লাল্টু চেয়ারম্যান পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। ঘোড়া প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪৭ হাজার ৮৪ ভোট।

তৃতীয় ধাপে ১০৯টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তারিখ চূড়ান্ত করে তফসিল ঘোষণা করেছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে ২২টি উপজেলায় ভোট স্থগিত করা হয়। ২২টি উপজেলা পরিষদের মধ্যে ২০টির ভোট হবে ৯ জুন এবং বাকি ২টির ভোট হবে ৫ জুন চতুর্থ ধাপের সঙ্গে।

৯ জুন যেসব উপজেলায় ভোট হবে-বাগেরহাটের শরণখোলা, মোড়েলগঞ্জ ও মোংলা; খুলনার কয়রা, পাইকগাছা ও ডুমুরিয়া; বরিশালের গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া; পটুয়াখালী সদর, মির্জাগঞ্জ ও দুমকি; পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া; ভোলার তজুমদ্দীন ও লালমোহন; ঝালকাঠির রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া; বরগুনার বামনা ও পাথরঘাটা; রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি এবং নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরী।

চাঁদপুর জেলার কচুয়া ও ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ভোট হবে ৫ জুন।

দেশের ৪৯৫টি উপজেলার মধ্যে নির্বাচন উপযোগী ৪৮৫ উপজেলায় চার ধাপে ভোট হচ্ছে এবার। প্রথম ধাপে ১৩৯ উপজেলায় ভোট হয়েছে গত ৮ মে। এসব উপজেলায় গড়ে প্রায় ৩৬ শতাংশ ভোট পড়েছে। প্রথম ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২৮ জন নির্বাচিত হন। দ্বিতীয় ধাপে ১৫৬টি উপজেলা নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন ২২ জন। ২১ মে এই ধাপের নির্বাচনে ভোট পড়ে ৩৮ শতাংশ। তৃতীয় ধাপে কম-বেশি ৩৫ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে ধারণা দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

আগামী ৫ জুন চতুর্থ ধাপের ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এনাম হক / ডেইলি বগুড়া টাইমস

আরো খবর
© All rights reserved by Daily Bogra Times  © 2023
Theme Customized BY LatestNews