1. editor@dailybogratimes.com : dailybogratimes. :
প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা » Daily Bogra Times
Logo রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
দেশেই রাসায়নিক কারখানা তৈরি করতে চান ব্যবসায়ীরা কাঁচা মরিচের কেজি ২০০ টাকা ছারলো আবারও বাড়ল স্বর্ণের দাম বগুড়ার দুই হিমাগারে এক লাখ ৮ হাজার ডিম জব্দ ১০ ‍দিনের ব্যবধানে কাঁচা মরিচের দাম বেড়েছে দ্বিগুণ প্যালেস্টাইনে ইসরায়েলি নৃশংসতা গণহত্যার প্রতিবাদে নওগাঁয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সংহতি সমাবেশ পাঁচবিবিতে শেষ মুহূর্তে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রেবেকা সুলতানার গণসংযোগ  বদলগাছীতে ভর্তুকিতে কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন বিতরন  যে সাহাবির তিলাওয়াত শুনতে ভিড় জমিয়েছিলেন ফেরেশতারা মহাদেবপুরে ধানক্ষেত থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় বাবা-মায়ের উপর অভিমান করে কিশোরের আত্মহত্যা  রাজশাহী জেলা পরিষদের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ কাজের শুভ সূচনা আমি লজ্জিত নই বিষয়টি নিয়ে :জেফার বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন কবে, যা বললেন জালাল ইউনুস  মজাদার ক্ষীর তৈরি করুন আম দিয়েই

প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা

নিউজ ডেস্কঃ-
  • বৃহস্পতিবার, ৯ মে, ২০২৪
  • ১০ বার পঠিত
প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা
print news

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে ১৩৯টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। বুধবার (৮ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। ভোট গণনা শেষে রাতে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। ঢাকা পোস্টের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ফরিদপুর

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে ফরিদপুরের তিনটি উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফরিদপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামচুল আলম চৌধুরী আনারস প্রতীকে ৩১ হাজার ৯৩১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনিরুল হাসান (টেলিফোন) পেয়েছেন ৩০ হাজার ৯ ভোট।

চরভদ্রাসনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আলী মোল্লা আনারস প্রতীকে  ১৬ হাজার ১৬  ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ নিজামউদ্দিন  (টেলিফোন) পেয়েছেন ১০ হাজার ৪৫৪ ভোট।

মধুখালীতে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ মুরাদুজ্জামান দোয়াত কলম প্রতীকে ২৯ হাজার ৪৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আহসানুজ্জামান আজাউল ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ৪৮৫ ভোট।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারেক আহম্মেদ বলেন, জেলার তিনটি উপজেলায় অবাধ সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ পরিবেশের মধ্য দিয়ে একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও এখন পর্যন্ত নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রার্থীর অভিযোগ নেই। প্রতিটি কেন্দ্রের ফলাফল কেন্দ্রীয়ভাবে মিলিয়ে ঘোষণা করা হয়।

ফেনী 

ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারি ফলাফলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন মজুমদার জয়ী হয়েছেন। বুধবার রাত ৮টার দিকে ভোট গণনা শেষে বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ রেজাউল করিম।

তিনি জানান, উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৫ হাজার ৫৭১ জন। এর মধ্যে নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ২৭ হাজার ৬৩৫ ভোট পেয়ে কাপ-পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী হারুন মজুমদার বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী মোহাম্মদ জাফর উল্ল্যাহ ভূঁঞা পেয়েছেন ৭৭৫ ভোট।

নারায়ণগঞ্জ 

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সবকটি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফল পাওয়া গেছে। এতে চেয়ারম্যান পদে জেলা জাতীয় পার্টির (জাপা) সহ-সভাপতি মাকসুদ হোসেন আনারস প্রতীকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

বুধবার রাতে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মাকসুদ হোসেন আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২৯ হাজার ৮৭৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও মহানগর বিএনপির বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল চিংড়ি প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ৬৫৩। অপর প্রার্থী বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ রশিদ দোয়াত-কলম প্রতীকে পেয়েছেন ১২ হাজার ৬০৮ ভোট।

মেহেরপুর

মেহেরপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪০ হাজার ৯২৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আনারুল ইসলাম। তার নির্বাচনী প্রতিক ছিল মোটরসাইকেল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম শাহীন কাপ পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৫০৭ ভোট।

মুজিবনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীকে ১৭ হাজার ৬৩ ভোট পেয়ে আমাম হোসেন মিলু বেসরকারিভাবে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রফিকুল ইসলাম তোতা কাপ পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ১০০ ভোট। 

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওয়ালীউল্লাহ ভোট গণনা শেষে রাতে দুই উপজেলার ফলাফল ঘোষণা করেন।

শরীয়তপুর

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে শরীয়তপুরের নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নড়িয়া উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন একেএম ইসমাইল হক। মোটরসাইকেল প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩০ হাজার ২২৮ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মামুন শিকদার ভিপি মোস্তফা পেয়েছেন ২০ হাজার ৫২৭ ভোট। টানা তৃতীয়বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন একেএম ইসমাইল হক

অন্যদিকে ভেদরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ইঞ্জিনিয়ার ওয়াছেল কবির গুলফাম বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৬০ হাজার ৩১২ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী হুমায়ুন কবির মোল্লা পেয়েছেন ৪২ হাজার ৫২৫ ভোট।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান বলেন, শরীয়তপুরের নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এছাড়াও ভোটার উপস্থিতি ছিল সন্তোষজনক।

বান্দরবান 

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে বান্দরবান সদর ও  আলীকদম উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সদর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আব্দুল কুদ্দুস বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৯ হাজার ১৪৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী একেএম জাহাঙ্গীর আনারস প্রতীক পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৬৬ ভোট পেয়েছেন।

অন্যদিকে আলীকদম উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে জামাল উদ্দীন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দোয়াত কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৯ হাজার ৭০০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. আবুল কালাম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৫১৬ ভোট।

বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো শহিদুল ইসলাম জানান, প্রশাসনের সার্বিক প্রচেষ্টায় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীরা নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলায় এটা সম্ভব হয়েছে। নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন বিজয়ী প্রার্থীরা। 

পিরোজপুর

প্রথম ধাপে পিরোজপুরের তিনটি উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার (৮ মে) ইভিএমে পিরোজপুর সদর, ইন্দুরকানী ও নাজিরপুরে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

রা‌তে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. মিজানুর রহমান বেসরকা‌রিভা‌বে নির্বাচনে বিজয়ী‌দের নাম ঘোষণা ক‌রেন। 

পিরোজপুর সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে এসএম বায়জিদ হোসেন, ইন্দুরকানীতে জিয়াউল আহসান গাজী ও  নাজিরপুর উপজেলায় এস এম নূরে আলম সিদ্দিকী শাহীন বিজয়ী হয়েছেন। 

সদর উপজেলায় এসএম বায়জিদ হোসেন দোয়াত কলম প্রতীকে ৩৪ হাজার ৭৩৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. শফিউল হক মিঠু আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৬০৭ ভোট। 

ইন্দুরকানী উপজেলায় জিয়াউল আহসান গাজী আনারস প্রতীকে ১১ হাজার ২০৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফাইজুল কবির দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৭৪৩ ভোট। 

নাজিরপুর উপজেলায় এস এম নূরে আলম সিদ্দিকী শাহীন দোয়াত কলম প্রতীকে ১৯ হাজার ২৭২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোহাম্মদ আলী সিকদার ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ২৯৩ ভোট।

কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন কুষ্টিয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফের চাচাতো ভাই আতাউর রহমান আতা। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে ৬৭ হাজার ৪৮১ ভোট পেয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে আবু আহাদ আল মামুন ৩ হাজার ৫৬৪ ভোট পেয়েছেন। 

বুধবার রাতে সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. সহিদুল রহমান বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন। 

অন্যদিকে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল মাসুম মোর্শেদ শান্ত। তিনি ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ২৫ হাজার ১০১ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান বাবুল আখতার মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে ১৯ হাজার ৫৩৯ ভোট পেয়েছেন। 

খোকসা উপজেলা নির্বাচন অফিসার আলমগীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

এনাম হক / ডেইলি বগুড়া টাইমস

আরো খবর
© All rights reserved by Daily Bogra Times  © 2023
Theme Customized BY LatestNews