1. editor@dailybogratimes.com : dailybogratimes. :
বাজারে নতুন লিচু, চড়া দামে বিক্রি » Daily Bogra Times
Logo রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১০:১২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
দেশেই রাসায়নিক কারখানা তৈরি করতে চান ব্যবসায়ীরা কাঁচা মরিচের কেজি ২০০ টাকা ছারলো আবারও বাড়ল স্বর্ণের দাম বগুড়ার দুই হিমাগারে এক লাখ ৮ হাজার ডিম জব্দ ১০ ‍দিনের ব্যবধানে কাঁচা মরিচের দাম বেড়েছে দ্বিগুণ প্যালেস্টাইনে ইসরায়েলি নৃশংসতা গণহত্যার প্রতিবাদে নওগাঁয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সংহতি সমাবেশ পাঁচবিবিতে শেষ মুহূর্তে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রেবেকা সুলতানার গণসংযোগ  বদলগাছীতে ভর্তুকিতে কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন বিতরন  যে সাহাবির তিলাওয়াত শুনতে ভিড় জমিয়েছিলেন ফেরেশতারা মহাদেবপুরে ধানক্ষেত থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় বাবা-মায়ের উপর অভিমান করে কিশোরের আত্মহত্যা  রাজশাহী জেলা পরিষদের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ কাজের শুভ সূচনা আমি লজ্জিত নই বিষয়টি নিয়ে :জেফার বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন কবে, যা বললেন জালাল ইউনুস  মজাদার ক্ষীর তৈরি করুন আম দিয়েই

বাজারে নতুন লিচু, চড়া দামে বিক্রি

নিউজ ডেস্কঃ-
  • সোমবার, ১৩ মে, ২০২৪
  • ১৪ বার পঠিত
বাজারে নতুন লিচু, চড়া দামে বিক্রি
print news

কিশোরগঞ্জে আগাম জাতের কিছু লিচু বাজারে উঠতে শুরু করেছে। বেশি লাভের আশায় অপরিপক্ব লিচু বাজারে নিয়ে আসছেন ব্যবসায়ীরা। বাজারে নতুন লিচু, চড়া দামে বিক্রি। সাধ্যের বাইরে হওয়ায় কিনতে পারছেন না সাধারণ ক্রেতারা। কিছু ক্রেতা মৌসুমের প্রথম ফল হিসেবে কিনলেও ফিরে যাচ্ছেন অনেকেই।

বাগান মালিকরা জানিয়েছেন, চলতি মৌসুমে গাছে গাছে লিচুর প্রচুর মুকুল এসেছিল। কিন্তু হঠাৎ মার্চ মাসের ২০ ও ২১ তারিখে বৃষ্টি হয়ে অধিকাংশ মুকুল ঝরে যায়। অবশিষ্ট মুকুল থেকে গুটি ও লিচু হয়ে গেলেও বৃষ্টির কোনো দেখা মেলেনি। তীব্র তাপপ্রবাহ ও খরায় অন্তত ৪৫ শতাংশ লিচু ফেটে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ব্যাপক লোকসানের শঙ্কায় রয়েছে তারা। 

ব্যবসায়ী শামিম বলেন, আগাম জাতের কিছু লিচু গাছ থেকে নামানো শুরু হয়েছে। তবে বৈরী আবহাওয়ায় শুরু থেকেই ফলন কম ছিল। পরে প্রচণ্ড দাবদাহ ও অনাবৃষ্টিতে লিচু ফেটে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে একদিকে লিচুর সংখ্যা কমে গেছে, অন্যদিকে লিচু বাছাই করতে করতেই দিন শেষ হয়ে যাচ্ছে। এর ফলে শ্রমিকও বেশি লাগায় খরচ বেড়ে যাচ্ছে। যে টাকায় বাগান কিনেছিলাম ১০০ লিচু ৩০০ টাকা করে বিক্রি করলেও লাভ হবে না। কিন্তু আমরা এক হাজার লিচু খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে ২ হাজার ৫০০ টাকা দরে বিক্রি করছি। তারা বেশি দামে বিক্রি করবে।

রবিবার (১২ মে) সরেজমিনে জেলা শহরের স্টেশন রোড, বড়বাজার, কাচারি বাজারসহ বেশকিছু বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সড়কের দুই পাশে লিচু বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। এই লিচু বছরের প্রথম ফল হিসেবে শখ করে বেশি দাম দিয়ে কিনছেন কেউ কেউ। আবার দাম শুনেই পিছু হটছেন অনেকে।

বিক্রেতারা জানান, স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত আগাম লিচুর ভালো চাহিদা রয়েছে। রসালো ফল এখন কিছু মিললেও স্বাদ তেমন ভালো নয়। বেশি লাভের আশায় ব্যবসায়ীরা বাজারে আনছেন। লিচু কিনতে এসেছেন জেলা শহরের বত্রিশ এলাকায় বাসিন্দা রাজীব সরকার। তিনি বলেন, ‘আজ হঠাৎ করেই বাজারে লিচু দেখে চোখ আটকে গেল। কিন্তু দাম চড়া। ১০০ লিচুর দাম চাচ্ছে ৪৫০ টাকা। পরে দরদাম করে ৪০০ টাকায় কিনলাম।

রাকিব নামে একজন লিচু বিক্রেতা বলেন, লিচুগুলো গাজীপুর কাপাসিয়া এলাকার একটি বাগানের। এগুলো আগাম জাতের লিচু হওয়ায় প্রতি বছরই মৌসুমের শুরুতে বাজারে ওঠে। এবারও উঠেছে। মৌসুমের প্রথম ফল হলেও স্বাদে-মিষ্টিতে অনন্য। তবে দাম একটু চড়া।

বড়বাজারের ব্যবসায়ী হাসান বলেন, ‘আমরা বাগান থেকে কিনে এনেছি ৩০০ টাকা দরে। আমাদেরও তো কিছু লাভ করতে হবে। প্রথম দিন এক হাজার লিচু এনেছি। বাজারে নতুন ফল দেখে অনেকেই কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই লিচু শেষ।

আগাম লিচুর বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যবসায়ী মেরাজ নাছিম বলেন, তীব্র তাপপ্রবাহ ও প্রচণ্ড খরায় লিচু ঝরে পড়ে ফেটে নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে বাগানমালিকরা ভয়ে আগেই লিচু নামিয়ে ফেলছেন। তবে দেশি জাতের লিচু একটু আগেই বাজারে আসে। অন্যদিকে অল্প হলেও কিছু টাকা পাচ্ছে বাগানমালিকরা।

এনাম হক / ডেইলি বগুড়া টাইমস

আরো খবর
© All rights reserved by Daily Bogra Times  © 2023
Theme Customized BY LatestNews